দেশে ফিরতে দূতাবাসের সামনে প্রবাসীদের বিক্ষোভ, আত্বহ’ত্যার হু’মকি

শেয়ার করুন বন্ধুদের সাথে

নিজের খরচে স্বেচ্ছায় দেশে ফিরতে চাওয়া ওমান প্রবাসীরা ওমানে বাংলাদেশ দূতাবাসের সামনে বিক্ষো’ভ করেছে । মন্ত্রনালয় থেকে প্রবাসীদের নিবন্ধন বা

তালিকা করতে দূতাবাসগুলোকে নির্দেশের পরও কোন পদক্ষেপ নেয়নি। ৩১ মে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে দূতাবাসের শ্রম উইংকে নির্দেশনা দেন।

তিনি বলেছিলেন, “যে সকল প্রবাসী স্বেচ্ছায় নিজেদের খরচে বা কোম্পানীর খরচে দেশে ফিরতে চান, তাদেরকে দূতাবাসে গিয়ে নিবন্ধিত হতে হবে।” এ বিষয়ে দূতাবাসগুলোকে নির্দেশনা দিবেন কি না? এমন প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, ”

নির্দেশনা এখনই দিয়ে দিলাম এবং আজই নির্দেশনার চিঠি পাঠিয়ে দেয়া হবে।” এই খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচার হয়।

এতে করে দীর্ঘ দিন অপেক্ষায় থাকা প্রবাসীদের মাঝে আশা জাগে যে তার নিজের দেশে ফিরতে পারবে অচিরেই ।

এরপর ৩ জুন কাতার, ইরাক ও মালদ্বীপে বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে অনলাইনে নিবন্ধনের জন্য বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়। ৭ জুন বাহরাইন দূতাবাস থেকেও বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়।

এজন্য অনলাইন লিংকও দেয়া হয় বিজ্ঞপ্তিতে । কিন্তু ওমান দূতাবাস ‌এ বিষয়ে কোন ঘোষণা বা বিজ্ঞপ্তি এখনো দেয়নি।

মঙ্গলবার( ( ৯ জুন ) ওমানে বাংলাদেশ দূতাবাসের সামনে’ প্রবাসীরা দেশে ফেরার নিবন্ধনের জন্য জড়ো হন। তারা দূতাবাসের কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগ করলে,

বলা হয় মন্ত্রীর এমন কোন নির্দেশনা তারা পাননি। প্রবাসীরা জানান, “মন্ত্রীর এই ঘোষণার খবরকে সঠিক নয় বলেছে দূতাবাসের কর্মকর্তারা। কিন্তু আমরা তো মন্ত্রীর বক্তব্য শুনেছি ও দেখেছি।

তাহলে কোনটা মিথ্যা আর কোনটা সত্য?” এ বিষয়ে জানতে দূতাবাসের শ্রম কাউন্সেলর ও প্রথম সচিবকে ফোন দেয়া হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

এমতাবস্থায় নিজের খরচে স্বেচ্ছায় দেশে ফিরতে চাওয়া ওমান প্রবাসীরা এর কোন সুষ্ঠ সমাধান না পেলে আত্বহ’ত্যার হুমকি দেন।

Author: editor

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *